ড়ঋতুর বাংলাদেশে শীতের পরেই শুরু হয় গরমের প্রখরতা। বাংলাদেশে এই সময়ে সূর্য খাড়া ভাবে কিরণ দেয়। তাই আমাদের বাংলাদেশে প্রচুর তাপের বৃদ্ধি পায়। এ সময়ে আমাদের শরীরীয়ের ঘামের পরিমাণ বেশি হয়, যার ফলে আমাদের শরীর থেকে প্রচুর পানি বেরিয়ে যায়। আর সেই ঘাটতি পূরণের জন্য আমাদের প্রতিদিন পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করা উচিত ।

তবে কি পরিমাণ পানি এই গরমে পান করা উচিত তা আমাদের জেনে নেওয়া উচিত। আসুন আজ আমরা জেনে নেই এই গরমে আমাদের কি পরিমাণ পানি পান করা উচিত এবং ঠান্ডা পানি বেশি গ্রহনে কি ধরনের ক্ষতি হতে পারে।


প্রথমে জেনে নেই দৈনিক কতটুকু পানি আমাদের খাওয়া উচিতঃ এক জন সুস্থ মানুষের প্রতিদিন নুন্যতম ২ লিটার পানি পান করা উচিত। যদি এর থেকে কম পানি পান করে। তবে তার শরীরে জ্বালা পোড়া থেকে বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে। অনেকে পানির পাশাপাশি কোমোল পানিয় ফলের জুস ও অন্যান্য তরল গ্রহন করে থাকে। সে ক্ষেত্রে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যাতে অতিরিক্ত পানি পান করা না হয়। অতিরিক্ত পানি পান করলে কিডনির বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে। যাদের গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা রয়েছে তারা সকালে খালি পেটে পানি পান করবেন। পানি পান করার পরে অন্তত ২০-৩০ মিনিট বিরতি নিতে হবে।



খাবার খাওয়ার সময় পানি পান না করাই ভালো কেননা খাবার সময় পানি পান করলে জারক এসিড পাতলা হয়ে যায় ।

ঠান্ডা পানি যত সম্ভব পরিহার করুণ। গরমে অনেকেই ঠাণ্ডা পানি বা আইস শরবত খেয়ে থাকেন। কিন্তু এতে করে রক্তনালী সংকুচিত হতে পারে। এছাড়া খাদ্য হজমে সমস্যা পুষ্টিগুণ শোষণে বাধার সৃষ্টি করতে পারে। ফলে ডিহাইড্রেশন নামক রোগ হতে পারে।

কাজেই যত সম্ভব ঠাণ্ডা পানি গ্রহণের ব্যাপারে সতর্ক থাকুন ।



দুরন্ত বার্তা, ঢাকা - ১৯ মার্চ ২০১৮
Share To:

A-TechBD

Post A Comment:

0 comments so far,add yours